শিশুকালে আমাদের মুখে অস্হায়ী দাঁত থাকে। ৬ বছর বয়স থেকে স্হায়ী দাঁতগুলো উঠতে থাকে। আমাদের মুখে ২০টি অস্হায়ী দাঁত থাকে ও ৩২টি স্হায়ী দাঁত থাকে। দাত ও মাঢ়ির বিভিন্ন রোগের কারণে দাঁত পড়ে যায়। পড়ে যাওয়া দাঁতগুলো কৃত্রিমভাবে বাঁধানোর কাজটি প্রস্হডনটিষ্টরা করে থাকেন।

মুখে যখন কিছু দাঁত থাকে ও কিছু পড়ে যায় তখন তাকে চথড়য়মথল  Partial Edentulous বলে। আর একটিও দাঁত না থাকলে Complete Edentulous বলে।

Partial Edentulous Patent’দের Partial Denture  দ্বারা দাঁত পুনঃস্হাপন করা হয়। আর Complete Edentulous’দের Complete Denture দিয়ে পুনঃস্হাপন করা হয়।

আমরা দাঁত পুনঃস্হাপনের বিষয়গুলো ধারাবাহিকভাবে আলোচনা করব।
আজ আমাদের আলোচনার বিষয় হলো Complete Denture.

শুরতেই বলছি যে, হারানো দাঁত পুনঃস্হাপনের পুরো কাজটিই প্রস্হডনটিষ্টদের। আর তাই Complete Denture নির্মাণের পুরো প্রক্রিয়াটি প্রস্হডনটিষ্টদের করতে হয়। সঠিকভাবে তৈরি Complete Denture মুখের স্বাস্হ্য নিশ্চিত করে।

Complete Denture তৈরিতে কিছু নিয়মকানুন ও দক্ষতা অর্জন করতে হয়। যেনতেনভাবে তৈরি Complete Denture ব্যবহার করা উচিত নয়।
এটা লক্ষণীয় যে, Complete Denture তৈরিতে পুরানো ধ্যান-ধারণায় অনেকে Suction Disc ব্যবহার করেন। যার ফলে শক্ত তালু ফুটো হয়ে যায়। তখন খাবার ও পানি নাক দিয়ে বের হয়ে আসে।

তালু ফুটো হয়ে গেলে এর চিকিৎসা আছে। তালু ফুটো বড় মাপের হলে Bone Grafting  করতে হয়। তাই সঠিক ও নিরাপদ Complete Denture ব্যবহার করতে হবে। Complete Denture-এ অনেক সময় ধারাল অংশ থাকে। তা মুখের নরম অংশকে আঘাত করে এবং ক্ষত সৃষ্টি করে। তাই ধারাল অংশগুলোকে সরিয়ে ফেলা উচিত।

সঠিকভাবে তৈরি একটি Complete Denture-এ মুখের স্বাস্হ্য অটুট থাকে। এর ব্যবহারে মুখের গঠন ফিরে আসে। রোগী খাবার খেতে পারে। এবং কথা বলতে পারে। আর হাসিতেও সৌন্দর্য ফিরে আসে।

Complete Denture ব্যবহারে কিছু নিয়ম-কানুন আছে। খাবার খাওয়ার পর Denture-টিকে ভালোভাবে সাবান দিয়ে অথবা শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার রাখা উচিত। নতুবা ছত্রাক সংক্রমণে তালুতে ও মাঢ়িতে ক্ষত সৃষ্টি হতে পারে। মুখে রক্ত চলাচল সঠিকভাবে হওয়ার জন্য রাতে ঘুমানোর সময় Denture-টি খুলে রাখা উচিত। আর খুলে রাখলে অবশ্যই পানিতে ডুবিয়ে রাখতে হবে। ছত্রাক সংক্রমণে অবশ্যই প্রস্হডনটিষ্টদের পরামর্শ নেয়া উচিত।

**************************
লেখকঃ  ডা. আলেয়া সুলতানা
সহযোগী অধ্যাপিকা, প্রস্হডনটিক্স বিভাগ, ডেন্টাল অনুষদ,
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।
উৎসঃ  দৈনিক আমারদেশ, ১০ ডিসেম্বর ২০০৭