প্রোস্টেট গ্রন্থির সমস্যা এড়াতে পুরুষরা সতর্ক হোন। কিছু খাবার কমিয়ে এবং কিছু খাবার বাড়িয়ে আপনি আপনার প্রোস্টেট গ্রন্থি বৃদ্ধির সমস্যা কমাতে পারেন। চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের গবেষণা থেকে এ পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

প্রোস্টেট গ্রন্থি বৃদ্ধি হলে বেশ কিছু সমস্যা দেখা দেয়। এর মধ্যে রয়েছে ঘন ঘন প্রস্রাব করা, কিংবা ঘন ঘন প্রস্রাব করার ইচ্ছা। হঠাৎ করে প্রস্রাব বন্ধ হয়ে মূত্রথলি পূর্ণ হয়ে যন্ত্রণা হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব পুরম্নষ প্রচুর পরিমাণ মাখন, মারজারিন, গোশত এবং অন্যান্য জিঙ্কসমৃদ্ধ খাবার খান তাদের প্রোস্টেট গ্রন্থি বড় হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অন্য দিকে যেসব পুরম্নষ প্রচুর পরিমাণে ফল খান তাদের প্রোস্টেট গ্রন্থি বড় হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।

আপনার প্রোস্টেট গ্রন্থি যাতে বড় না হয় সেজন্য নিচের পরামর্শগুলো গ্রহণ করম্নন। এসব পরামর্শ মেনে চললে একই সাথে আপনি অন্যান্য স্বাস্থ্য ঝুঁকিও কমাতে পারবেন।

খুব কম মাখন ও মারজারিন গ্রহণ করুন বেশি মাখন ও মারজারিন খেলে আপনার বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য সমস্যার ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। এসব সমস্যার মধ্যে রয়েছে অতি স্থূলতা ও হৃদরোগ। এসব সমস্যা এড়াতে আপনি চর্বি গ্রহণের মাত্রা সীমিত রাখুন। খেয়াল রাখবেন, আপনার চর্বি গ্রহণের মাত্রা যেন আপনার দৈনিক ক্যালরির ২৫ শতাংশের বেশি না হয়। কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, অন্যান্য চর্বির বিকল্প হিসেবে অলিভ অয়েল বা জলপাই তেল আপনার হৃদরোগ এবং সম্ভাব্য ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পারে। মাখন ও মারজারিনের সাথে প্রোস্টেট গ্রন্থি বৃদ্ধির উচ্চ ঝুঁকি লক্ষ্য করা গেলেও অলিভ অয়েল গ্রহণে এ ধরনের ঝুঁকি লক্ষ্য করা যায়নি। সুতরাং যত কম সম্ভব মাখন ও মারজারিন খাবেন। বিকল্প হিসেবে খাবেন অলিভ অয়েল বা জলপাই তেল।

জিঙ্কের দিকে লক্ষ্য রাখুনঃ বয়স ৫০-এর বেশি হলে বেশি গোশত এবং জিঙ্কসমৃদ্ধ যেকোনো সাপি্নমেন্ট পরিহার করম্নন। কেননা গবেষণায় দেখা গেছে, জিঙ্ক গ্রহণে প্রোস্টেট গ্রন্থি বড় হয়। যদি আপনার গোশত খেতেই হয় তাহলে দৈনিক তিন আউন্সের মধ্যে সীমিত রাখুন।
বেশি করে ফল খানঃ গবেষণায় দেখা গেছে, বিদ্যমান পুষ্টি উপাদান ক্যান্সার এবং অন্যান্য রোগের ঝুঁকি কমিয়ে দেয়। টমেটোতে বিদ্যমান লাইকোপেন প্রোস্টেট ক্যান্সারকে প্রতিহত করে। গবেষকদের পরামর্শ হলো, আপনি দৈনিক কমপক্ষে চার ধরনের ফল এবং পাঁচ ধরনের সবজি খাবেন।


**************************
ডা. মিজানুর রহমান কল্লোল
চেম্বারঃ কমপ্যাথ লিমিটেড, ১৩৬ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা (সোম, মঙ্গল, বুধবার)।
যুবক মেডিক্যাল সার্ভিসেস ,
বাড়িঃ ১৬, রোডঃ ২৮ (পুরান), ১৫ (নতুন),
ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা, ঢাকা (শনি, রবি, বৃহস্পতি)। 
দৈনিক নয়া দিগন্ত, ৬ এপ্রিল ২০০৮