চুল নিয়ে আজকাল অনেকেরই ভাবনার অন্ত নেই। বলা স্বাস্থ্যোজ্জ্বল সুন্দর চুল সবারই কাম্য। আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত সমান ভারী চুলকে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুল যায়। এ ছাড়া চকচকে কালো চুল ও মাথার ত্বক পরিষ্কার থাকতে হবে।

স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য প্রয়োজন সুষম খাদ্য। সঠিক পরিমাণে আমিষ, শর্করা, চর্বি, ভিটামিন ও খনিজসমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। খাদ্য তালিকায় থাকতে হবে প্রচুর শাকসবজি, ফল ও সালাদ। খনিজ পদার্থ ও ভিটামিনের অভাবে চুলের স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যায়, চুল ঝরে পড়ে।

সঠিক পরিমাণে পানি পান করলে শরীর থেকে বর্জø পদার্থ বেরিয়ে যায়।

নিয়মিত ব্যায়াম করলে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়।

মাথায় ত্বক নিয়মিত পরিষ্কার রাখাও প্রয়োজন।

প্রেটিন এবং আপনার চুুল

প্রেটিনের অভাবে চুলের রঙ প্রথমে নষ্ট হয়ে যায়। চুল লালচে বাদামি হতে থাকে। পরে চুল ঝরে যায় এবং চুলের আগা ফাটতে থাকে। কেরাটিনের অভাবে চুল ফেটে যায়। খাদ্য তালিকায় মাছ, গোশত, ডিম, দুধ, ডাল, দই, পনির ইত্যাদি থাকা জরুরি। এতে কেরাটিন তৈরিতে সহায়তা হয়। ভিটামিন এবং আপনার চুল

ভিটামিন ‘এ’র অভাবে চুল রুক্ষ ও প্রাণহীন হয়ে ওঠে। আবার অতিরিক্ত ভিটামিন ‘এ’র জন্য চুল ঝরে পড়তে পারে। অতিরিক্ত ভিটামিন ‘এ’র জন্য অল্প অল্প করে চুল জায়গায় জায়গায় উঠে গিয়ে টাক পড়ে যায়। খাদ্য তালিকায় দুধ, গাজর, মুলা, সবুজ শাকসবজি থাকা প্রয়োজন। ভিটামিন ‘সি’র অভাবে চুল খসখসে শুষ্ক হয়ে ওঠে। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় তাই লেবুজাতীয় ফল, কমলালেবু, মোসম্বী ইত্যাদি থাকা প্রয়োজন। ভিটামিন ‘বি’ চুুলকে চকচকে ও ঘন করে তোলে। শস্যদানা, দুধ, ডিম, কলা, বাদাম, কলিজা ও ডালে রয়েছে ভিটামিন ‘বি’। প্রতিদিন ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার খেলে চুল স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হবে এবং চুল ঝরেবে না।

স্নেহপদার্থ এবং আপনার চুল

চুল তৈলাক্ত হলে প্রাণীজ জাতীয় খাবার পরিহার করুন। উদ্ভিজ্জ তেল খেতে পারেন। সম্পৃক্ত চর্বি গরু-খাসির গোশত কম খাবেন। দুধ বা ননী তোলা দুধ, পনির ও দই খেতে পারেন।

স্বাস্থ্যহীন চুলের কারণঃ সুষম খাবার না খাওয়া স্বাস্থ্যহীন চুুলের প্রধান করাণ। খাদ্য তালিকা সঠিক না হওয়ার কারণে চুল ঝরে পড়তে পারে। এ ব্যাপারে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খাবার ও ভিটামিন গ্রহণ করা প্রয়োজন। দীর্ঘ সময় হেলমেট, টুপি ইত্যাদি পরে থাকা, চুলে নানা কেমিক্যাল ডাই ব্যবহার করা, সঠিকভাবে চুল পরিষ্কার না করা, খুশকি ও অন্যান্য রোগ, অতিরিক্ত রোদে বের হওয়া এবং চুল ভেজা থাকা, শারীরিক অসুখ-বিসুখ, মানসিক চাপ, ঘুম না হওয়া এবং হরমোনের তারতম্যজনিত কারণ, স্বাস্থ্যহীন হয়ে পড়লে এবং চুল ঝরে পড়লে এর কারণ খুঁজে বের করতে হবে এবং সঠিক চিকিৎসা প্রয়োজন। সুষম আহার চুলের সঠিক পরিচর্যা এবং প্রয়োজনে কিছু ঔষধের ব্যবহারে চুর স্বাস্থ্যেজ্জ্বল হয়ে উঠতে পারে।

**************************
ডা• ওয়ানাইজা
চেম্বারঃ যুবক মেডিক্যাল সার্ভিসেস লিমিটেড, বাড়ি-১৬, রোড-১৫ (নতুন), ২৮ (পুরাতন), ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা, ঢাকা।
দৈনিক ইত্তেফাক, ২৬ এপ্রিল ২০০৮