সমস্যাঃ আমার বয়স ২৪ বছর। আমার টাইপ-২ ডায়াবেটিস আছে। মিষ্টিজাতীয় যেকোনো খাবার না খেলেই তা নিয়ন্ত্রণে থাকে। আমি একটি ছেলেকে পছন্দ করি। তারও ডায়াবেটিস আছে। তাঁর বয়স ৩০ বছর। ভবিষ্যতে আমাদের সন্তানদের কি ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা আছে? থাকলেও তা কতটুকু। বিস্তারিত জানালে খুশি হব।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
কুমিল্লা।

পরামর্শঃ টাইপ-২ ডায়াবেটিস হওয়ার জন্য পরিবেশগত অবস্থা বেশি দায়ী। এ ক্ষেত্রে বংশগত প্রভাবের চেয়েও পারিপার্শ্বিক অবস্থাই বেশি দায়ী। বর্তমানে আমাদের দেশের পারিপার্শ্বিকতা টাইপ-২ ডায়াবেটিস হওয়ার ক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছে। এর পাশাপাশি বংশের কারও, বিশেষ করে মা-বাবার ডায়াবেটিস থাকলে সন্তানদের ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা থাকেই।

তাই টাইপ-২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে হলে স্বাস্থ্যসম্মত জীবন যাপন করার অভ্যাস করতে হবে। যেমন-পরিমিত খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা, শাকসবজি-ফলমূল বেশি করে খাওয়া, চর্বিযুক্ত ও বেশি কোলেস্টেরলযুক্ত খাবার কম খাওয়া এবং সম্ভব হলে একেবারেই না খাওয়া। শারীরিক কায়িক পরিশ্রম বাড়ানো, শরীর-মেদ স্থূল হলে তা নিয়ন্ত্রণ, অর্থাৎ শরীরের সঠিক ওজন বজায় রাখাটা জরুরি।

সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, শুধু শরীরের সঠিক ওজন বজায় রাখা এবং নিয়মিত ব্যায়াম করলে টাইপ-২ ডায়াবেটিস বহুলাংশে প্রতিরোধ করা যায়। আর টাইপ-২ ডায়াবেটিস হয়ে থাকলে প্রায় সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। তাই এ দিকগুলোর দিকে নজর রাখলে টাইপ-২ ডায়াবেটিস নিয়েও সম্পূর্ণ সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবন যাপন করা সম্ভব।
আপনাদের সন্তান যদি তার শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে, নিয়মিত কায়িক পরিশ্রম করে এবং পরিমিত খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলে, তাহলে তার পক্ষেও টাইপ-২ ডায়াবেটিস অনেকটাই প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে।

**************************
পরামর্শ দিয়েছেন
ডা• মো• ফরিদউদ্দিন
সহযোগী অধ্যাপক, অ্যান্ডোক্রাইন মেডিসিন
বঙ্গবন্ধু শেখমুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা
দৈনিক প্রথম আলো, ০৭ মে ২০০৮