(ডা. মনিরুল ইসলাম) মাছে ক্ষতিকর তেল নেই। তাই মাছ খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি থাকে না। তবে বর্তমানে মাছের আরেকটি বিশেষ গুণ প্রমাণিত হয়েছে। আর তা হলো মাছ ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রত্যহ সামুদ্রিক মাছ খায়, অন্যদের তুলনায় তাদের মুখের ও পাকস্থলির ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি কমে। জানা যায়, যারা সপ্তাহে একবারও মাছ খায় না তাদের তুলনায় যারা সপ্তাহে অন্তত একবার মাছ খায় তাদের অন্ননালীতে ক্যান্সারের হার ৩০ শতাংশ কম। আর যারা সপ্তাহে দুই বা ততোধিক বার মাছ খায় তাদের মুখ ও কণ্ঠনালীর ক্যান্সারের আশঙ্কা অর্ধেক কমে যায়। গবেষকদের ধারণা, সামুদ্রিক মাছে বিদ্যমান ফ্যাটি এসিড টিউমার সৃষ্টিতে বাধা দেয়। তাই মাছ খাবারে চাই। ক্যান্সার আর হৃদরোগ প্রতিরোধ হলেই তো অনেক বড় ঝুঁকি থেকে রেহাই পাওয়া গেল, সাথে মাছের স্বাদটা তো একদম ফ্রি।