অ্যান্টিবায়োটিকের অপ্রয়োজনীয় বহুল প্রয়োগ করছেন চিকিৎসকেরা, সম্প্রতি এমন অভিযোগই শোনা গেল ব্রিটেনে ওষুধশিল্পসংক্রান্ত এক সম্মেলনে। বিশেষজ্ঞদের মতে, সর্বাধুনিক ও ব্যয়বহুল অ্যান্টিবায়োটিকগুলো শুধু ‘সর্বশেষ প্রতিরক্ষা’ হিসেবে ব্যবহূত হওয়া উচিত। কিন্তু জরিপে দেখা গেছে, চিকিৎসকেরা সর্বাধুনিক ও দুর্লভ অ্যান্টিবায়োটিকগুলো বেশি বেশি করে ব্যবস্থাপত্রে লিখে দিচ্ছেন, যদিও বিকল্প ও সুলভ অ্যান্টিবায়োটিক হাতের কাছেই রয়েছে।
নিষিদ্ধ ধূমপান, হূদরোগ কমে গেছে
হোটেল রেস্তোরাঁয় ও অন্যান্য আবদ্ধ স্থানে ধূমপান নিষেধ করে আইন পাসের এক বছরের মধ্যেই এর সুফল পেয়েছেন স্কটিশরা। হূদরোগে আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তির হার সে দেশে এক বছরের মধ্যেই শতকরা ১৭ ভাগ হ্রাস পেয়েছে। আগের বছর এই হ্রাসের হার ছিল মাত্র তিন ভাগ।

টকিং থেরাপি
রোগীর সঙ্গে শুধু কথা বলে (টকিং থেরাপি) রোগ নিরাময় নতুন কিছু নয়। লন্ডনের কিংস কলেজের অধ্যাপক ট্রুডি চালডার এ বিষয়ে গবেষণা করে সম্প্রতি দেখিয়েছেন, এর মাধ্যমে ডায়াবেটিস ও ইরিটেবল বাওয়েল সিন্ড্রোমের মতো দীর্ঘস্থায়ী রোগও সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসা যায়। চিকিৎসাকালে কথা বলে রোগ সম্পর্কে রোগীর দৃষ্টিভঙ্গিতে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করা হয়, যাতে তারা নিজেদের অসুস্থতা সর্ম্পকে নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গির সমন্বয় করতে এবং জীবনযাপন-পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনতে পারেন।

*******************************
লেখকঃ ডা· নুরুর রহমান
উৎসঃ দৈনিক প্রথম আলো, ১০ অক্টোবর ২০০৭