স্বাস্থ্যকথা

প্রস্টেট ক্যান্সার

প্রোস্টেট গস্ন্যান্ড পুরুষেরই একান্ত। বয়স হলে অনেক সময় এই গস্ন্যান্ড বেড়ে যায়, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই বৃদ্ধি নিরীহ। কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে এই বৃদ্ধি হতে পারে অস্বাভাবিক, রূপ নিতে পারে ক্যান্সারে। একে আগাম নির্ণয়ের জন্য প্রচলিত রয়েছে রক্তের একটি পরীক্ষাঃ প্রোস্টেট স্পেসিফিক এন্টিজেন বা পি•এস•এ। রোগ নির্ণয় কৌশল হিসেবে এর প্রসিদ্ধি ছিলো। কিন্তু ইদানীং গবেষকরা বলছেন প্রোস্টেটের ক্যান্সার সোসাইটির পরামর্শঃ পঞ্চাশ উর্ধ্ব প্রতিটি পুরুষের বছরে একবার প্রোস্টেট ক্যান্সারের স্কিনিং করানো উচিত।
পুরুষদের ক্যান্সারের মধ্যে প্রোস্টেট ক্যান্সার রয়েছে শীর্ষস্থানে। এই ক্যান্সারের পেছনে কারণ খোঁজা হচ্ছে অনেক দিন ধরেই। এ সম্বন্ধে নতুন একটি ধারণা এসেছে ইদানীং। আমেরিকায় কালোদের মধ্যে এই ক্যান্সারের হার খুব বেশি। এর সঙ্গে জিনগত অনেক উপাদানের একটি সম্পর্ক খুঁজে পাওয়া গেছে। গবেষণার ফলাফল বেরিয়েছে এ বছর এপ্রিল মাসের গোড়ার দিকে।

Categories