স্বাস্থ্যকথা

হৃৎযন্ত্র, রক্ত ও রক্তসংবহনতন্ত্র

(Page 5 of 5)   « Prev  1  2  3  4  
5
  
Next »
চিরতরে চলে গেছেন চিত্রনায়ক মান্না। আর কখনোই তিনি প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর হয়ে পর্দা কাঁপাবেন না। মান্নার আকস্মিক মৃত্যুর পর সর্বত্র একই আলোচনা। মান্নাকে কি বাঁচানো সম্ভব ছিল? মান্না তো বুকে ব্যথার সঙ্গে সঙ্গেই হাসপাতালে গিয়েছিলেন তবে কেন এই পরিণতি? মান্না কি আগে থেকেই হৃদরোগে ভুগছিলেন? বিদেশে পাঠালে কি মান্না বেঁচে যেতেন? এরকম অসংখ্য প্রশ্নের মুখোমুখি হচ্ছি প্রতিনিয়ত।
চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে স্ট্রোকের (ঝঃৎড়শব) ঝুঁকি এড়াতে স্বাস্থ্যসচেতনতা খুবই জরুরী। উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস এবং মেদবহুলতা স্ট্রোকে আক্রান্ত হবার ঝুঁকি বাড়ায়। অনেকেই স্ট্রোকের উপসর্গ না জানার কারণে মিনিস্ট্রোকে আক্রান্ত হবার ব্যাপারে একেবারেই অজ্ঞ থাকেন। একবার মিনিস্ট্রোকে আক্রান্ত হলে পরবর্তীতে পূর্ণ স্ট্রোকে আক্রান্তের ঝুঁকি বেড়ে যায়।
কেস স্টাডি অস্বাভাবিক মোটা শরীর নিয়ে তিনি ৪০-এ পা রেখেছেন। ২১ বছরেই বসেছিলেন বিয়ের পিঁড়িতে। তারপর দুই সন্তানের মা। একটানা খেয়ে যান জ্ননিয়ন্ত্রণের বড়ি। তারপর হঠাৎ মোটা হতে শুরু করেন।
হৃদরোগ সারাবিশ্বেই মারণব্যাধি হিসেবে স্বীকৃত। বাংলাদেশে এই ঘাতক ব্যাধিকে এক সময় শুধু ধনীদের রোগ হিসেবে গণ্য করা হতো। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, এ রোগ এখন ধনী-গরিব যে কোনো বয়সেই আঘাত করছে। যাদের আর্থিক সঙ্গতি আছে তারা বড় বড় হাসপাতালে অ্যানজিওগ্রাম, অ্যানজিওপ্লাষ্টি বা করোনারি আর্টারি বাইপাস সার্জারির মতো আধুনিক চিকিৎসা সুবিধা নিতে পারছেন। কিন্তু যাদের আর্থিক সঙ্গতি নেই তাদের অনেকেই এইসব আধুনিক চিকিৎসা সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। কিন্তু ঘাতক ব্যাধি ঠিকই কেড়ে নেয় জীবন। এসব রোগী জানেন না কেন তার হৃদরোগ হয়েছে। এই রোগ কীভাবে প্রতিরোধ করা যেত অথবা এখন কী করণীয়।
বেশি বেশি চর্বি খেলেন, শাকসবজি মোটেই পছন্দ করেন না, আর ফাস্টফুড খেয়ে বেড়াচ্ছেন। চিকিৎসকের কাছে এসে বলছেন-হার্ট অ্যাটাক থেকে মুক্ত থাকার ওষুধ দিন। কিন্তু তাতে হার্ট অ্যাটাক এড়াতে পারবেন না। হার্ট অসুস্থ হবেই। তাই হার্টকে সুস্থ রাখার জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন ও খাদ্য সম্পর্কে সচেতন হওয়া।
মানসিক চাপ বা স্ট্রেস অতিমাত্রায় বাড়লে এবং তা দীর্ঘস্থায়ী হলে হার্ট এ্যাটাক, স্ট্রোক, ডায়াবেটিস, রক্তচাপ, কোলেস্টারল বৃদ্ধি ইত্যাদি বিভিন্ন মেটাবলিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও বৃদ্ধি পায়।
(ডা. এম এম নওশের) বিভিন্ন সময় আমাদেরকে রুগীর জীবন রক্ষার্থে রক্ত পরিসঞ্চালিত করতে হয়। রক্ত পরিসঞ্চালন মানে হচ্ছে, একজনের দেহ থেকে রক্ত নিয়ে সেই রক্তের গ্রুপ ও আর এইচ ফ্যাক্টর দেখে এবং ক্রস ম্যাচিং করে একই গ্রুপধারী অন্য কোনো ব্যক্তির দেহে প্রবেশ করানো।
(ডা· মাসুদা বেগম) জীবনের আরেক নাম রক্ত| প্রতিবছর আমাদের দেশে দুই থেকে আড়াই লাখ ব্যাগ রক্তের প্রয়োজন হয় মুমূষুê রোগীকে বাঁচাতে| এই রক্ত আমরা পেয়ে থাকি দাতার কাছ থেকে| রক্তের কোনো বিকল্প নেই| মানুষের জন্য মানুষই রক্তের একমাত্র জোগানদাতা|
(ডা· এম এইচ মিল্লাত) সুস্থ হার্ট, সুন্দর জীবুন| আর সুন্দর জীবনের প্রত্যাশা সবার| বাংলাদেশে প্রায় দেড় কোটি মানুষের বিভিন্ন ধরনের হূদরোগ রয়েছে| আর বাংলাদেশসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় রয়েছে অকালে হৃদরোগ হওয়ার প্রবণতা|
(Page 5 of 5)   « Prev  1  2  3  4  
5
  
Next »

Categories